শেরপুরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বৃদ্ধি ও নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়ে আন্ত:কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতা

প্রকাশিত: ৬:৩১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুক্তিবান, সৃজনশীল, মননশীল জাতি গঠনে ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বৃদ্ধিকরণ ও নারীর ক্ষমতায়ন’ ইস্যুতে শেরপুরে অনুষ্ঠিত হয়েছে তৃতীয় আন্ত:কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতা। ২২ অক্টোবর মঙ্গলবার শেরপুর সরকারি কলেজ মিলনায়তনে সনাতনী ধারার ওই বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করে নাগরিক প্লাটফরম জনউদ্যোগ এবং আইইডি’র ইয়ুথ অ্যাজ চেঞ্জ এজেন্ট ফর সোসাল কোহেশন প্রকল্প। বাংলাদেশ ডিবেট ফেডারেশন (বিডিএফ) এবং শেরপুর ডিস্ট্রিক্ট ডিবেট ফেডারেশন (এসডিডিএফ) এতে কারিগরি সহায়তা প্রদান করে। এ বিতর্ক প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে ‘বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে আইন নয়, সামাজিক সচেতনতাই অধিক কার্যকরি, নারীর অগ্রযাত্রায় সমানাধিকারের চেয়ে সমদায়িত্ব বেশী প্রয়োজন’। এমন বিষয়ে বিতার্কিকরা তাদের বক্তব্যে যুক্তি-পাল্টা যুক্তি উপস্থাপন করেন। তারা নারীর ক্ষমতায়নে অর্থনৈতিক স্বাবলম্বীতা অর্জনের ওপর জোর দেন। একই সাথে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সহনশীলতা বৃদ্ধি ও গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করা হয়।
এ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় জেলার ৪টি মহিলা কলেজ ৭টি কলেজের ৮টি বিতর্ক দল অংশগ্রহণ করে। বিকেলে ফাইনালে ‘নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের চেয়ে সামাজিক ক্ষমতায়ন বেশী জরুরী’ শীর্ষক প্রস্তাবের পক্ষে শেরপুর সরকারি কলেজ ডিবেটিং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন ও বিরোধীদলে থাকা নালিতাবাড়ীর শহীদ আব্দুর রশীদ স্মৃতি মহিলা কলেজ রানারআপ হয়। সেরা বিতার্কিক নির্বাচিত হন যৌথভাবে শেরপুর সরকারি কলেজ ডিবেটিং ক্লাবের দলনেতা নাওয়ার সালসাবিলা দুর্দানা ও শহীদ আবদুল রশিদ স্মৃতি মহিলা কলেজের দলনেতা লক্ষ্মী রানী রাজবংশী। পরে অতিথিবৃন্দ চ্যাম্পিয়ন, রানারআপ, সেরা বিতার্কিক এবং অংশগ্রহণকারী সকল কলেজ দলের হাতে পুরস্কারের ক্রেস্ট, বই এবং শুভেচ্ছা স্মারক তুলে দেন।

সকালে শেরপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজ আল মামুন প্রধান অতিথি হিসেবে বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন। সমাপনী অনুষ্ঠানে পুরষ্কার বিতরণ করেন জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মো. লুৎফুল কবীর। অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ-সাংস্কৃতিক সংগঠক অধ্যাপক শিব শংকর কারুয়া, জনউদ্যোগ আহ্বায়ক শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ, বিডিএফ যোগাযোগ সম্পাদক প্রসেনজিৎ রায়, এসডিডিএফ সাধারণ সম্পাদক এস.এম ইমতিয়াজ চৌধুরী, সাংবাদিক হাকিম বাবুল প্রমুখ। উদ্বোধনী ও সমাপনী সভাপতিত্ব করেন মডেল শেরপুর সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক শাহ কামাল। বিডিএফ কেন্দ্রীয় কমিটির যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক প্রসেনজিৎ রায়, নির্বাহী সদস্য সাজ্জাদ হোসাইন, ময়মনসিংহ বিভাগীয় আহ্বায়ক এসডিডিএফ সম্পাদক এস এম ইমতিয়াজ চৌধুরী শৈবাল ও যুগ্ম আহ্বায়ক আবুবকর সিদ্দিক রাজু এ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন।